ডয়েচে ভেলে এর সেরা ব্লগ অনুসন্ধানে বাংলাদেশের সাবরিনা দ্বিতীয়

জার্মান সংবাদ সংস্থা ডয়চে ভেলের ‘সেরা ব্লগ অনুসন্ধান প্রতিযোগিতা’য় বাংলাদেশের সাবরিনা সুলতানা ‘বেস্ট ব্লগ’ ক্যাটাগরিতে দ্বিতীয় হয়েছেন। তিনি বাংলা ভাষার পক্ষে এ বিভাগে লড়াই করেন। ১২ এপ্রিল, ২০১১ ডয়চে ভেলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এমন অর্জনে উচ্ছ্বসিত সাবরিনা বলেন, ‘অবশ্যই ভালো লাগছে। প্রথম হতে পারিনি, তারপরও আমি খুশি। প্রতিবন্ধী মানুষও যে সক্ষম, এটা প্রমাণ করতে পেরে ভালো লাগছে। প্রতিবন্ধী মানুষের অধিকারের বিষয়টি নিয়ে আমরা যে কাজ করছি, এ অর্জন তারও স্বীকৃতি।’ সাবরিনা সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ও বিচারকেরা সাবরিনাকে এ স্থানের জন্য বেছে নিয়েছেন। সাবরিনাকে পেছনে ফেলে ‘বেস্ট ব্লগ’ পুরস্কার জিতেছেন তিউনিসিয়ার মেয়ে লিনার ‘এ তিউনিসিয়ান গার্ল’। বিশ্বের বিভিন্ন ভাষার বিচারকেরা গত সোমবার জার্মানির বন শহরে বৈঠকে সাবরিনার ব্লগটি সম্পর্কে জানতে সর্বোচ্চ সময় ব্যয় করেন। এ বিভাগে পরপর তিনবার বিচারকদের মধ্যে ভোটের আয়োজন করা হয়৷ চূড়ান্ত ভোটে সাবরিনার পক্ষে অবস্থান নেন পাঁচ ভাষার বিচারক। কিন্তু লিনার পক্ষে অবস্থান ছিল সাত বিচারকের। বিচারকদের দুই ভোটের জন্য সাবরিনার প্রথম স্থান হাত ছাড়া হয়।

চট্টগ্রামের মেয়ে সাবরিনা প্রতিবন্ধী মানুষের অধিকার অর্জন ও উন্নয়নে কাজ করা  বাংলাদেশ সোসাইটি ফর দ্যা চেঞ্জ এন্ড অ্যাডভোকেসি নেক্সাস (বি-স্ক্যান) নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সভাপতি। সাবরিনা জানালেন, এ প্রতিযোগিতায় তাঁর অংশগ্রহণের কারণে অনেকেই তাঁদের কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে পেরেছে।

ডয়চে ভেলের খবরে জানা গেছে, এবারের প্রতিযোগিতায় মোট ভোট সংখ্যা ছিল ৯০ হাজার ৮০৮। ছয়টি মিশ্র ভাষার ক্যাটাগরিতে ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ দেওয়া হলেও বাংলা ভাষার কোনো ব্লগই ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ অর্জনে সক্ষম হয়নি। এবারের ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ জয়ী অন্য ব্লগগুলো হচ্ছে, মানবাধিকার বিভাগে ইংরেজি ভাষার ব্লগ ‘মাইগ্রেন্ট-রাইটস ডট অর্গ’, বেস্ট ভিডিও চ্যানেল নির্বাচিত হয়েছে ফার্সি ভাষার ইউটিউব চ্যানেল ‘স্ট্যান্ডস উইথ ফিস্ট’,  টেকনোলজি ফর সোশ্যাল গুড বিভাগে রুশ ভাষার ‘রসপিল ডট ইনফো’, বেস্ট সোশ্যাল অ্যাক্টিভিজম ক্যাম্পেইন বিভাগে আরবি ভাষার ‘উই আর খালিদ সাইদ’ নামের ফেসবুক গ্রুপ এবং রিপোর্টার্স উইদআউট বডার্স বিভাগে জুডিথ টরিয়ার স্প্যানিশ ভাষার ব্লগটি।

Leave a Reply